পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরী – BSCIC Panchagarh

শিল্প-কারখানার জন্য বিপুল সম্ভাবনাময় পঞ্চগড়ে ১৯৯৩ সালে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের আওতায় স্থাপিত হয় বিসিক শিল্প সহায়ক কেন্দ্র। এরপর ১৯৯৪ সালে ডিসেম্বরে (১৯৯১ সালে প্রস্তাবিত) পঞ্চগড়ের শিল্প সম্ভাবনা বিকাশের লক্ষ্যে জেলা শহরের দক্ষিণ প্রান্তে পঞ্চগড় সুগার মিলস লিমিটেড সংলগ্ন এলাকায় ১৫ একর জমির উপর ৩টি ক্যাটাগরিতে শিল্প ইউনিট করার লক্ষে ৯৬টি প্লট নিয়ে গড়ে উঠে পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরী।

পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরী
পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরী

পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরীতে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ, পর্যাপ্ত পানি ও ড্রেনেজ সুবিধাসহ পরিপূর্ণ যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে পঞ্চগড়ের সড়ক ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন, ঢাকার সাথে সরাসরি রেল যোগাযোগ এবং স্থানীয় শ্রমিক প্রাপ্যতা শিল্পনগরী প্রতিষ্ঠা সহায়ক। পঞ্চগড় বিসিক শিল্পনগরীতে দ্রব্য সামগ্রী তৈরি করে নিকটবর্তী বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের মাধ্যমে দেশে এবং পার্শ্ববর্তী ভারত, নেপাল ও ভুটানের বাজার করা যেতে পারে। ২০২২ সালের তথ্য মোতাবেক পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরীর একর প্রতি জমির মূল্য ৬০.২৫ লক্ষ টাকা।

পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরীতে প্রতিষ্ঠিত শিল্প ইউনিটের মধ্যে রয়েছে, কোল্ড স্টোরেজ, বিস্কুট কারখানা, মসলা প্রক্রিয়াজাতকরণ কারখানা, স্যানিটারি (রিং-স্লাব) সামগ্রী তৈরির কারখানা, আসবাবপত্র তৈরি কারখানা, ওয়েল মিল তিল প্রসেসিং কারখানা, তাঁত কারখানা ও মুড়ি কারখানা। বেশ কিছু প্লট কেবল প্রাচীর ও স্থাপনা তুলে দখল করে রাখা হয়েছে। উল্লেখ্যে যে, পঞ্চগড় বিসিক শিল্প নগরীতে দাপ্তরিক কার্যক্রম পরিচালনায় জন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারী নেই। পঞ্চগড়ে পর্যাপ্ত ব্যাংক ঋণের সুবিধার অভাব, গ্যাস সরবরাহ পর্যাপ্ত না থাকার কারণে স্থানীয় উদ্যোক্তারা শিল্প-কারখানা স্থাপনে কিছুটা অন্তরায়। সম্ভাবনাময় পঞ্চগড় জেলার এই বৃহৎ শিল্প নগরীটি পরিপূর্ণ শিল্প নগরী হিসেবে গড়ে উঠলে জেলার আর্থ-সামাজিক উন্নয়নসহ কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে বলে প্রত্যাশা পঞ্চগড়বাসীর।

…আরো পড়ুন পঞ্চগড়ের শিল্প ও বাণিজ্য


ছবিঃ শাকিল আহমেদ
Last updated: 28 May 2024

 

Share:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

বিসিক শিল্পনগরী, পঞ্চগড়
পঞ্চগড় সদর

ম্যাপঃ Google map

ওয়েবসাইটঃ https://ossbscic.gov.bd/